ইসলামী রাস্ট্রের সরকারী বৃত্তি ও আমীরে মোয়াবিয়া

0
776

ইসলামী রাস্ট্রের সরকারী বৃত্তি ও আমীরে মোয়াবিয়া

গ্রন্থসূত্র: মুক্তো দিয়ে গেঁথেছি মালা

প্রকাশনায়: আল কোরআন একাডেমী পাবলিকেশন্স

 

আবু মুসলিম খাওলানী ও আমীর মোয়াবিয়া (রা.)
একদিন হযরত আমীর মোয়াবিয়া (রা.) ভাষণ দেয়ার জন্যে মাসজিদের মেম্বরে দাঁড়িয়ে বলতে লাগলেন, হে জনগণ! আমার কথা শুনুন এবং মেনে চলুন। একথা শুনে আবু মুসলিম খাওলানী দাঁড়িয়ে বাধা দিলেন, বললেন, ‘হে মোয়াবিয়া আমরা আপনার কথা শোনবোও না, আপনার অনুগতও হবো না।’
আমীর মোয়াবিয়া (রা.) জিজ্ঞেস করলেন, ‘কেন আবু মুসলিম।’
‘আপনি ‘আতায়া’ বন্ধ করলেন কেন? এটা তো আপনার বা আপনার মা-বাবার উপার্জন থেকে চালু করা হয়নি।’ আবু মুসলিম জবাব দিলেন।
রাষ্ট্রের পক্ষ থেকে বিভিন্ন লোককে যে সরকারী বৃত্তি দেয়া হতো তার নাম ‘আতায়া’। আমীর মোয়াবিয়া সে সময় বৃত্তি বন্ধ করে দিয়েছিলেন।
আবু মুসলিম খাওলানীর জবাব শুনে আমীর মোয়াবিয়া (রা.) রাগে ফেটে পড়লেন, আর তখনি তিনি মেম্বর থেকে নেমে শ্রোতাদের বললেন, ‘আপনারা একটু বসুন, আমি এখনি আসছি।’ এ কথা বলে তিনি বাইরে চলে গেলেন এবং কিছুক্ষণ পর গোসল করে ফিরে এসে বললেন, ‘আবু মুসলিম আমাকে এমন কথা বলেছিলো যাতে আমি ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেছিলাম। আমি রসূল (স.)-কে বলতে শুনেছি, শয়তানের উসকানিতে ক্রোধের সৃষ্টি হয়, আর আগুন থেকেই শয়তানের সৃষ্টি। আগুন নেভাতে হয় পানি দিয়ে, কাজেই কেউ রেগে গেলে সে যেন গোসল করে আসে।

এজন্যে আমি গোসল করে এসেছি। আবু মুসলিম ঠিকই বলেছে। এ ভাতা আমার বা আমার মা বাবার উপার্জন থেকে চালু করা হয়নি। কাজেই আপনারা আপনাদের ভাতা যথারীতি আদায় করে নিন।’

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY