আল আকসায় ইহুদি ধর্মালয় নির্মানের আহবান, ফিলিস্তিনী হত্যা অব্যাহত

ফিলিস্তিন ইস্যু

0
189
ফিলিস্তিনে নতুন করে শুরু হওয়া সহিংসতায় এযাবত 25 ফিলিষ্তিনী নিহত হয়েছেণ। আর ইসরাইলের আবাসনমন্ত্রী ইউরি মুসলিম বিশ্বের তৃতীয় পবিত্রতম স্থান আল-আকসা মসজিদের জায়গায় ইহুদি উপাসনালয় নির্মাণের আহ্বান জানিয়েছেন। তার ভাষায়, বহু বছর আগেই প্রথম ও দ্বিতীয় ইহুদি উপাসনালয় ধ্বংস করা হয়েছে। এ কারণে আল-আকসা মসজিদের জায়গায় তৃতীয় উপাসনালয় নির্মাণ করা দরকার। ইহুদি উপাসনালয়ের জায়গায় আল-আকসা মসজিদ নির্মাণ করা হয়েছে বলে তিনি দাবি করেন।
ইসরাইলি আবাসনমন্ত্রীর এ বক্তব্যের তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন ফিলিস্তিনিরা। ফিলিস্তিনিরা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেছেন, ইতিহাস বিকৃত করে ইহুদিবাদিরা আল-আকসা মসজিদ ধ্বংসের ষড়যন্ত্র চালিয়ে যাছে।
তারা আরো বলছেন, বায়তুল মোকাদ্দাসকে স্বাধীন ফিলিস্তিনের রাজধানী করা হবে এবং সেখানকার ইসলামী স্থাপনাগুলোর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র সহ্য করা হবে না।
এদিকে, ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় গত রবিবার ইসরাইলি বিমান হামলায় এক ফিলিস্তিনি নারী ও তার কন্যা শিশু নিহত হয়েছে। নিহত ফিলিস্তিনি নারীর নাম নুর হাসান। এ ঘটনায় তার তিন বছর বয়সী মেয়ে শাদও নিহত হয়েছে। হামলায় তিনজন আহত হয়েছে। ধ্বংসাবশেষের নিচে কেউ চাপা পড়ে আছে কি-না, তা নিশ্চিত হতে অনুসন্ধান চলছে।

ইহুদিবাদী ইসরাইলি সেনাদের গুলিতে আরো এক ফিলিস্তিনি শহীদ হয়েছে।  হানাদার বাহিনী আজ আল আকসা মসজিদের কাছে হামলা চালিয়ে ওই ফিলিস্তিনিকে হত্যা করে।

ফিলিস্তিনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, নতুন করে নিহত হওয়ার ঘটনায় গত ১২ অক্টোবর থেকে গণআন্দোলন শুরু হওয়ার পর এ পর্যন্ত মোট ২৫ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে।

দখলদার ইসরাইলের জঙ্গি বিমান এখনো গাজা উপত্যকার মধ্য ও পশ্চিমাঞ্চলে বোমা বর্ষণ করেছে। এ ছাড়া, ইসরাইলের যুদ্ধ জাহাজ থেকেও গাজার সমুদ্র উপকূলে কর্মরত ফিলিস্তিনি জেলেদের ওপর গুল বর্ষণ করা হয়েছে। এতে ফিলিস্তিনিদের মাছ ধরা কয়েকটি নৌকা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এবং জেলেরা ফিরে আসতে বাধ্য হয়।

ইহুদিবাদী ইসরাইলের বিমান হামলায় ফিলিস্তিনের একজন গর্ভবতী নারী ও তিন বছরের এক শিশু শহীদ হয়েছে। ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় ইসরাইলি এ হামলায় তিনজন আহত হয়।

ফিলিস্তিনের স্বশাসিত কর্তৃপক্ষ ‘মাহমুদ আব্বাস’ আজ (১১ই অক্টোবর) ঘোষণা করেছেন: যেভাবে নিউইয়র্কে জাতিসংঘে ফিলিস্তিনি পতাকা উড়ানো হয়েছে, ঠিক সেভাবে আল আকসা মসজিদের ছাদে ফিলিস্তিনি পতাকা উড়ানো হবে।
তিনি বলেন: ফিলিস্তিনি অধিবাসী তাদের সব কিছুর বিনিময়ে আল আকসা মসজিদ রক্ষা করার জন্য চেষ্টা করবে।
মাহমুদ আব্বাস গুরুত্বারোপ করে বলেন: যায়নবাদীদের ওপর আমরা আর আক্রমণ করব না এবং তাদের প্রতি আহ্বান জানাবো তারাও জেন আমাদের ওপর আক্রমণ না করে এবং আল আকসা মসজিদে যেন  প্রবেশ থেকে বিরত থাকে। পুনরায় মাহমুদ আব্বাস, ইসরাইলিদের নিজেদের চুক্তির প্রতি অটুট থাকার আহ্বান জানিয়েছেন।

ইসরাইল এমন সময় হামলা জোরদার করেছে যখন ফিলিস্তিনের ইসলামী প্রতিরোধ আন্দোলন হামাস ইসরাইলকে হামলা বন্ধের আহবান জানিয়েছে। কারণ হামলা চলতে থাকলে ফিলিস্তিনিরাও পাল্টা প্রতিক্রিয়া দেখাতে বাধ্য হবে বলে তারা সতর্ক করে দিয়েছে

ইসরাইলি সেনাবাহিনীর দাবি, হামাসের দুটি লক্ষ্যবস্তু লক্ষ্য করে আজকের বিমান হামলা চালানো হয়েছে। গত শুক্র ও শনিবার ইসরাইলে দুটি রকেট হামলা চালানোর প্রতিক্রিয়ায় এই হামলা হয়। এ ঘটনার পর ফিলিস্তিন ও ইসরাইলের মধ্যে সহিংস উত্তেজনা বাড়ার আশঙ্কা করা হছে। ফিলিস্তিন ও ইসরাইলের মধ্যে গত ১২ দিনের সহিংসতায় ২২ জন ফিলিস্তিনি ও চার ইসরাইলি প্রাণ হারিয়েছে।

ইহুদিবাদী ইসরাইলের দখলদারিত্বের বিরুদ্ধে বিক্ষোভে আরো অধিক হারে ফিলিস্তিনি তরুণীরা অংশগ্রহণ করছেন। অধিকৃত ফিলিস্তিনে গত কয়েক দিন ধরে ফিলিস্তিনিদের ওপর ইহুদিবাদী ইসরাইলের বর্বরোচিত গণহত্যা মারাত্মকভাবে বেড়ে যাওয়ার পরও এ ধরনের বিক্ষোভে যোগ দিচ্ছেন ফিলিস্তিনের অকুতোভয় তরুণীরা।
ইসরাইলি সেনাদের রাবার বুলেট, কাঁদানে গ্যাস, স্টান গ্রেনেড এবং তাজা গুলিকে অনায়াসে উপেক্ষা করে বিক্ষোভে মুখর হয়ে উঠছেন এ সব ফিলিস্তিনি তরুণী। এমনকি আটকাভিযান এবং ভয়াবহ নির্যাতনের বাস্তবতাও তাদেরকে বিক্ষোভ সংগ্রামের পথ থেকে টলাতে পারছে না। মাতৃভূমি মুক্ত করার এ প্রয়াস চালাতে গিয়ে হতাহত হওয়ার ঝুঁকি হাসি মুখেই বরণ করছেন এ সব নারী।
শনিবার গাজা উপত্যকায় ইহুদিবাদী বিমান হামলায় শহীদ হয়েছেন এক ফিলিস্তিনি গর্ভবতী মা এবং তার তিন বছরের শিশুকন্যা।  বুধবার এক ইহুদিবাদীর গুলিতে আল-কুদসে (জেরুজালেম) আহত হয়েছে অপর এক ফিলিস্তিনি নারী।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্র নীতি বিষয়ক প্রধান ফেডেরিকা মোগেরিনি সহিংসতা থেকে বিরত থাকার জন্য ইসরাইল ও ফিলিস্তিন কর্মকর্তাদের প্রতি আহবান জানিয়েছেন।

বেলজিয়ামের একটি দৈনিক জানিয়েছে, ফেডেরিকা মোগেরিনি লুক্সেমবার্গে ইউরোপীয় ইউনিয়নের বৈঠক শেষে মধ্যপ্রাচ্যের সাম্প্রতিক অস্থিতিশীল পরিবেশে প্রতিশোধমূলক যে কোনো কর্মকাণ্ড ও এর পাল্টা প্রতিক্রিয়ার ব্যাপারে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।

সূত্র:
বিবিস, রয়টার্স, রেডিও তেহরান ও ইনকিলাব।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY