সাত মাসে হাফেজা হলো ছয় বছরের আদিবা

কোরআন সংবাদ

0
668

যে মাত্র মাত্র সাড়ে ছয় বছর বয়সে পবিত্র কোরআনে কারিম হেফজ করে বিস্ময় সৃষ্টি করেছে। ছয় বছর বয়সী বিস্ময় শিশু আদিবা তাসনিম। আদিবা যাত্রাবাড়ীর হাফেজ কারী নেছার আহমাদ আন নাছিরী পরিচালিত মারকাজুত তাহফিজ ইন্টারন্যাশনাল মাদরাসা থেকে মাত্র সাত মাসেই পবিত্র কোরআনে কারিম হেফজ করেছে।

এমন কীর্তি গড়েছে। এটা আল্লাহতায়ালার অসীম কুদরতই বটে। যে মেয়েটি মাথার কাপড় ঠিকমতো দিতে পারে না, সেই মেয়ে পুরো কোরআন মুখস্থ করেছে সহিহ-শুদ্ধভাবে।

বাংলাদেশে কোরআনের এই বিষ্ময়কর প্রতিভাবান মেয়েটিকে দেখে অনেকেই অনুপানীত হচ্ছে। বিশেষকরে সারা বিশ্বজুড়েই মেয়ে হাফেজ বা হাফেজার সংখ্যা বেশী নেই। মেয়েরা মসজিদের ইমামতি কিংবা তারাবির নামায পড়ায়না বিধায় মেয়েদের মধ্যে কোরআন হিফজ করার প্রবণাতা কম। সাম্প্রতিক সময়ে দেশে বিভিন্ন হাফেজী মাদ্রাসার কোরআন হিফজ করার প্রবণতা বেড়েছে। সাধারণত পূন্যলাভের আশার ধর্মপ্রাণ  পরিবারের মেয়েরা কোরআন মুখস্থ করছে।

পবিত্র কোরআন হিফজ শেষে (মুখস্থ) আদিবা এখন ওই মাদরাসায় ভাষাশিক্ষা কোর্সে অধ্যয়ন করছে। আদিবার এ অনন্য কৃতিত্বের জন্য তাকে ও তার শিক্ষকদের ইসলামিক ফাউন্ডেশন বাংলাদেশের পক্ষ থেকে ২৫ অক্টোবর (রবিবার) সংবর্ধনা প্রদান করা হয়েছে।

আদিবার বাবা হাফেজ মাওলানা নাছিরুদ্দীন খান এবং মা হেলেনা আক্তার। আদিবা বরিশালের মেয়ে। দুইবোনের সংসারে আদিবা বড়।

আদিবা বড় হয়ে কোরআন গবেষণায় নিজেকে নিয়োজিত করতে চায়। আদিবা দেশবাসীর দোয়াপ্রার্থী।

সূত্র: বাংলানিউজ 24.কম

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY