কবিতার ঝুলি-২

0
58

একটা দিল আমার ছিলো

—-খাদিজা আখতার রেজায়ী

একটা দিল আমার ছিলো
সেই দিলে করতো বসত আমার আপন জন ॥

ছিলাম আমি বড়ো সুখী দিলের মানুষ নিয়া
হঠাৎ করেই আসলো কাঁপন দিলের ওপর দিয়া
ভাবলাম আমি কেমনে লুকাই দিলের এই কাঁপন ॥

দিলের মালিক আল্লাহ তায়ালা এ দিল তাঁরই দান
ভুলছে যে এই দানের কথা সে বড়ো বেঈমান

কেউবা দিলো মরণ কামড় কেউ ঝরালো খুন
বাড়লো তাতে দিলের অসুখ বাড়লো বহুূণ
তাদের হাতে জখম হলো জনমের মতন ॥

রাতের কসম করে তিনি বলেছেন

—-খাদিজা আখতার রেজায়ী

রাতের কসম করে তিনি বলেছেন
ভোরের কসম করে তিনি বলেছেন ॥

এ যমীন ফেটে যাবে, হবে ধূলিময়
আকাশ তুলোর মতো উড়বে
সাগরের পানিগুলো উথলে উঠে
ঘূর্ণিঝড়ের সাথে ঘুরবে
ভয়ে ভীত মানুষেরা, পশু পাখী জন্তুরা দৌড়াবে সকলেই দিশে হারাবেন॥

চন্দ্র, সূর্য, তারা আকাশ, যমীন
তীন আর জয়তুন ও তূরে সীনিন ॥

এসব শপথ করে তিনি বলেছেন
যমানা শপথ করে তিনি বলেছেন
কবরের অধিবাসী কবর ফেটে
শংকিত, ভীত হয়ে উঠবে
যন্ত্রণা, অপমান, লাঞ্ছনা, ভয় অগণিত চেহারায় ফুটবে
কিছু মুখ উজ্জল, দীপ্ত সুমুজ্জল, আরশের নীচে গিয়ে ওরা দাঁড়াবেন॥

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY