ইসলামিক স্টেট ইসলামের নামে মুসলিম উম্মাহকে ধ্বংস করার পাঁয়তারা করছে

0
75

সৌদি আরবের প্রধান মুফতি বলেছেন, ইসলামিক স্টেট ইসলামের নামে মুসলিম উম্মাহকে ধ্বংস করার পাঁয়তারা করছে। আইএস যে ধরনের ভুল ম্যাসেজ প্রচার করছে তা মুসলিম যুবকদের ভ্রষ্ট পথে ধাবিত করছে। মুসলিমদের অবশ্যই ফেতনা ফাসাদের বিরুদ্ধে দাঁড়াতে হবে।

২৩ সেপ্টেম্বর বুধবার মসজিদে নামিরায় পবিত্র হজের খুৎবায় কাবা শরীফের ইমাম মুফতি শায়েখ আবদুল আজিজ আল শায়েখ এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, নবী করিম সা. অন্যকে হত্যা করতে নিষেধ করেছেন। এজন্য রাষ্ট্রকে সর্ব সাধারণের ওপর সবসময় খেয়াল রাখতে হবে। তাদের সব রকম সুবিধা দিতে হবে। ইসলাম ব্যতীত সত্য কোনো ধর্ম নেই। ইসলাম সর্বোচ্চ এবং শান্তিময় ধর্ম। সর্বদা তাকওয়া এবং আল্লাহর অনুসরণ করে চলতে হবে। আল্লাহ বলেছেন, সত্য ধর্ম একমাত্র ইসলাম। আল্লাহর দিকেই আমাদের ফিরে যেতে হবে।

শায়েখ বলেন, দীন ও ইসলাম কেবল বিশ্বাসের মধ্যে সীমাবদ্ধ নয়। এর ওপর আমল করাই হলো ইসলাম। দীনের ওপর আমল না করলে মুসলিমদের ধ্বংস অনিবার্য। আল্লাহভীতির মাধ্যমেই জীবনকে উত্তম বানাতে হবে। ইসলামের দুশমন পুরো বিশ্বে ছড়িয়ে আছে। মুসলমান কোনো দ্বিতীয় মুসলিম ব্যক্তিকে হত্যা করতে পারে না। প্রত্যেক মুসলিমের উচিত উন্নত চরিত্রের অধিকারী হওয়া। আসল জীবন তো আখেরাতের জীবন।

তিনি বলেন, উম্মতের ফিকির ও একত্ববাদের মধ্যেই ইসলাম নিহিত। জুলুমকারীকে আল্লাহ অতি সত্তর নিজের কুদরতের মাধ্যমে ধ্বংস করে দেবেন। মুসলিমদের অবশ্য কর্তব্য হলো তার জীবনকে ইসলামী শিক্ষা অনুযায়ী লালন করা। শিরিক হলো সবচেয়ে বড় গুনাহ। জাহান্নামের দিকে অগ্রসর হওয়ার পথ। যে ব্যক্তি আল্লাহর সঙ্গে শরিক করে, তার ওপর জান্নাত হারাম হয়ে যায়। তার ঠিকানা হয় জাহান্নাম। মানুষের প্রতি দয়াশীল হও। চরিত্রকে পরিচ্ছন্ন করো। আমাদের নবী সা. কে আল্লাহ রহমত স্বরূপ দুনিয়াতে পাঠিয়েছেন।

Oct 18, 2015- জুমারার অনলাইন এডিশন থেকে নেওয়াuntitled-2213466388_1756071501281077_2073791806686577968_n

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY